নতুন আইন করে নিষিদ্ধ করা হচ্ছে চলার পথে স্মার্টফোন ব্যবহার!

ওহাব আইটিঃ চলার সময় আনমনে স্মার্টফোন ব্যবহারের ফল ভয়াবহ হতে পারে। বিশেষ করে সেটা যদি হয় শহরের ব্যস্ত কোনো সড়ক। সেটা অবশ্য সবারই জানা। তবু বারবার এই ভুল করেন সবাই।

যা হোক, দুর্ঘটনার ভয়ে যদি কাবু না-ও হয়ে থাকেন, তবে যুক্তরাষ্ট্রের নিউ জার্সি অঙ্গরাজ্য সরকারের পরিকল্পনা শোনার পর এই ভুল আর করতে চাইবেন না হয়তো। হাঁটার সময় ফোনে বার্তা পাঠানো রীতিমতো আইন করে নিষিদ্ধ করা হচ্ছে। না মানলে অর্থদণ্ড তো বটেই, জেলও হতে পারে।

নতুন আইন অনুযায়ী চলার সময় স্মার্টফোন ব্যবহারে হাতেনাতে ধরা পড়লে ৫০ ডলার পর্যন্ত অর্থদণ্ড কিংবা জেলে ১৫ দিন অথবা উভয় শাস্তিই হতে পারে।

আইনের প্রস্তাবক রাজ্য কংগ্রেসের ডেমোক্রেটিক সদস্য পামেলা ল্যামপিট বলেন, হাঁটার সময় হোক কিংবা গাড়ির চালনার সময়, রাস্তায় যদি কেউ অন্যদের ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়ায়, তবে তাকে অবশ্যই শাস্তির আওতায় আনা উচিত।

তবে ল্যামপিটের সঙ্গে সাধারণ মানুষের মত একরকমের না। জনসাধারণের মন্তব্য, আইন না বরং চলার সময় স্মার্টফোন ব্যবহার থেকে বিরত থাকতে জনসচেতনতা বাড়ানো উচিত। এ কথা সত্যি যে অন্যমনস্ক হয়ে স্মার্টফোন ব্যবহার দিন দিন ভয়াবহ আকার ধারণ করছে। দুর্ঘটনার খবর শোনা যাচ্ছে প্রায়ই। ২০১০ সালের পর দুর্ঘটনা বেড়েছে ৩৫ শতাংশ।

২০১৫ সালে আমেরিকান একাডেমি অব অর্থোপেডিক সার্জনসের গবেষণাপত্রে দেখানো হয়, ৭৮ শতাংশ প্রাপ্তবয়স্ক মার্কিন নাগরিক অন্যমনস্ক হয়ে হাঁটা অত্যন্ত বিপজ্জনক মনে করেন। তবে মাত্র ২৯ শতাংশ মানেন যে তাঁরা এই কাজটি করে থাকেন। নিউ জার্সির আইনটি পাস হলে তা মেনে চলা ছাড়া অবশ্য আর কোনো পথ থাকবে না কারও।

Comments

comments